বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ডাকসুর সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান বলেছেন, ছাত্ররাজনীতি নয়, ছাত্রলীগের রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে। তিনি বলেন, মেধাবী ছাত্র আবরারকে হত্যা করে এই অবৈধ সরকার ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করে দিতে চায়।




আমাদের দাবি ছাত্ররাজনীতি বন্ধ নয়, ছাত্র রাজনীতিকে যারা কলুষিত করছে ছাত্রলীগের গুণ্ডা বাহিনীর নেতৃত্বে যে ছাত্রলীগ চলছে- সেই ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করতে হবে।শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী চালক দলের উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।




আমান উল্লাহ আমান বলেন, ‘আজকে গণতন্ত্রের মাকে বন্দী করে রাখা হয়েছে। গণতন্ত্রকে বন্দী করে রাখা হয়েছে। মানবাধিকার ভূলুণ্ঠিত করে গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হয়েছে। এমনিভাবে ভোটবিহীন সরকার দেশ পরিচালনা করছে। এই সরকারের আর ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই।’




আমান বলেন, ক্ষমতাসীনদের শরিক দলের নেতা রাশেদ খান মেনন বলেছেন, ‘নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারে নাই, উপজেলা এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারে নাই। এদেশে কোনো ভোট হয় নাই।’




সুতরাং শেখ হাসিনার ক্ষমতায় থাকার কোনও অধিকার নাই। অবিলম্বে তাকে পদত্যাগ করতে হবে এবং জাতীয় সরকার গঠন করার মধ্য দিয়ে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার গঠন করার মধ্য দিয়ে একটি নির্বাচন হবে, যে নির্বাচনে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা হবে। এটাই হোক আজকের মানববন্ধনের দৃঢ় প্রত্যয়।’




দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে আমান উল্লাহ আমান বলেন, ‘আজকে আমরা এই মানববন্ধন থেকে শপথ নেবো- গণতন্ত্রকে মুক্ত করবো, অন্যায়ভাবে কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো, দেশনায়ক তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনবো।




বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার মধ্য দিয়ে একটি নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে, সেই নির্বাচনে ইনশাল্লাহ জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা হবে।আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মো: জসিম উদ্দিন কবিরের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বি এম শাজাহানের সঞ্চালনায়




মানববন্ধনে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিমউদ্দিন আলম, অ্যাডভোকেট রফিক শিকদার, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, কৃষক দলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, এম জাহাঙ্গীর আলম, সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মানিক তালুকদার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফজলে করিম সাগর প্রমুখ বক্তব্য দেন।