সময়টা ভালোই কাটছে পেসার আল-আমিন হোসেনের। প্রায় চার বছর পর জাতীয় দলে ফিরেছেন তিনি। ফিরেই নিজের অবস্থান জানান দিয়েছেন। ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বোলিংটা করেছেন দুর্দান্ত।ভারত সফরে নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ ছিল আল-আমিনের সামনে। সেটি যথাযথভাবেই কাজে লাগিয়েছেন তিনি। এ জন্য তার পরিবারকে দিতে হয়েছে অনেক ছাড়।




অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে ঘরে রেখে ভারত সফরে যান আল-আমিন। সেই শক্তি সঙ্গে নিয়েই ভারত সফরে দারুণ খেলেন তিনি। সদ্য শেষ হয়েছে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এবার টেস্ট সিরিজ শুরুর পালা।
এর আগেই শুনলেন সুখবর। দ্বিতীয়বার পুত্রসন্তানের বাবা হয়েছেন তিনি। সোমবার বিকালে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বাবা হওয়ার সুখবর দেন আল-আমিন। দোয়া চেয়েছেন সবার। সন্তানের দুটি ছবি পোস্ট করেন এ ডানহাতি পেসার।




২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আবারও জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন আল-আমিন। খেলেছেন সিরিজের সব ম্যাচ। টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ হলেও এখনই দেশে ফেরা হচ্ছে না তার। টেস্ট সিরিজ শেষ করে তবেই দেশে ফিরতে পারবেন সদ্য বাবা হাওয়া এ পেসার।




আরও দুই ওভার থাকলে দলকে জেতাতে পারতাম: নাইম
ভারতের মাঠে দুর্দান্ত ব্যাটিং করা তরুণ ওপেনার মোহাম্মদ নাইম শেখ বলেন, আমি আর দুই-তিন ওভার উইকেটে থাকতে পারলে হয়তো দলকে জেতাতে পারতাম।
টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে দেশে ফেরার আগে নাগপুরে সাংবাদিকদের নাইম আরও বলেন, ভারত সফরে যেভাবে লক্ষ্য ছিল সেভাবে ব্যাটিংয়ের চেষ্টা করেছি। যে বলে আমি আউট হয়েছি আমার মনে হয় সেটা পুরো ইনিংসে ওদের সেরা বল ছিল।




সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে ৪৮ বলে ৮১ রানের ইনিংস খেলেন নাইম। তার ব্যাটেই জয়ের স্বপ্ন দেখেছিল বাংলাদেশ। শেষ দিকে জয়ের জন্য টাইগারদের প্রয়োজন ছিল ৪৯ রান। এমন অবস্থায় আউট হয়ে ফেরেন নাইম।১৯ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করা প্রসঙ্গে নাইম বলেন, সেঞ্চুরির জন্য খেলিনি, দলকে জেতানোর জন্য খেলছিলাম। এই জায়গায় সফল হতে পারিনি, এর জন্য খারাপ লাগছে।




তিনি আরও বলেন, আক্ষেপ তো অনেক বেশি। সিরিজ জিততে পারলে অনেক ভালো লাগত। জিততে পারিনি বলে একটু খারাপ লাগছে। আমাদের আরেকটা জুটি হলে হয়তো আমরা জিততে পারতাম।ভারতের বিপক্ষে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ১৭৫ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে যায় বাংলাদেশ।




১২ রানে লিটন-সৌম্যর উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যাওয়া দলকে খেলায় ফেরান মোহাম্মদ মিঠুন ও নাইম। তৃতীয় উইকেটে তারা ৯৮ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখান। এরপর ৩৪ রানের ব্যবধানে ৮ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে পুরোপুরি ছিটকে যায় বাংলাদেশ।